অ্যাম্বুলেন্স থেকে হঠাৎ সড়কে ছিটকে পড়লো ক’রোনা ব্যক্তির লা’শ, (ভিডিও)

ক’রোনায় মা’রা যাওয়া একাধিক ব্যক্তির লা’শ নেওয়া হচ্ছিল জরাজীর্ণ একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে। সেখান থেকে হঠাৎ সড়কে ছিটকে পড়ে একটি লা’শ, যা দেখে হতভম্ব হয় আশপাশের মানুষ। দৃশ্যটি বলে দিচ্ছে ভারতে ক’রোনার পরিস্থিতি কতটা

নাজুক।লা’শ পরিবহনের জন্য পর্যা’প্ত অ্যাম্বুলেন্সও মিলছে না দেশটিতে। এক অ্যাম্বুলেন্সেই বহন করতে হচ্ছে একাধিক লা’শ। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, মধ্য প্রদেশের রাজধানী ভুপাল থেকে প্রায় ৫৭ কিলোমিটার দূরে জে’লা

পর্যায়ের কোনো হাসপাতাল থেকে লা’শগুলোটি বহন করা হচ্ছিল।লা’শ ছিটকে পড়ার একটি ভিডিও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ৫০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ক’রোনায় মা’রা যাওয়াদের লা’শ নিয়ে

হাসপাতাল থেকে বের হয় একটি অ্যাম্বুলেন্স। হাসপাতালের গেট থেকে বের হওয়ার সময় একটি লা’শ ছিটকে সড়কে পড়ে যায়।
বি’ষয়টি দেখে ঘাবড়ে যান চালক। পরে আশপাশের লোকজন গিয়ে লা’শটি অ্যাম্বুলেন্সে তুলতে গিয়ে দেখেন অ্যাম্বুলেন্সে

একাধিক লা’শ। ভিডিও ভাইরালের পর পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, আমাদের না জানিয়েই লা’শটি অন্য কোথাও নেওয়া হচ্ছিল। এভাবে হয়তো অনেক লা’শই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে না।

নি’খোঁজ সাবমেরিনের ধ্বং’সাবশেষ উ’দ্ধার

ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনীর নি’খোঁজ সাবমেরিন কেআরআই না’ঙ্গালা-৪০২-এর ৫৩ আরোহীর সবাই মা’রা গেছে বলে ধারণা করছে উ’দ্ধারকারী দল। শনিবার (২৪ এপ্রিল) ইন্দোনেশিয়ার স’শস্ত্র বাহিনী জানিয়েছে, অনুসন্ধান দলগুলো সা’মরিক

সাবমেরিন থেকে প্রা’প্ত কিছু জিনিস উ’দ্ধার করেছে।এক বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার সকালের দিকেই অক্সিজেনের মজুত শেষ হয়ে গেছে।এ বি’ষয়ে উ’দ্ধার কর্মকর্তারা বলছেন-

উ’দ্ধারকৃত ধ্বং’সাবশেষ প্রমাণ করে জাহাজটি ডুবে গেছে, শনাক্তকারীরা সাবমেরিনটি প্রায় ৮৫০ মিটার পানির নিচে শনাক্ত করেছে।উ’দ্ধারকৃত বস্তুগুলোর মধ্যে লুব্রিক্যান্টের বোতল ও টর্পেডো সুরক্ষা রাখার একটি ডিভাইস রয়েছে।

এর আগে ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছিল, সাবমেরিনটি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে উ’দ্ধার করতে হবে। কারণ, জাহাজে তিন দিন চলার মতো অক্সিজেন রয়েছে। সে হিসেবে নাবিকদের জীবিত পেতে হলে শনিবারের (২৪ এপ্রিল) মধ্যে সাবমেরিনটি উ’দ্ধার

করতে হবে।গত বুধবার (২১ এপ্রিল) ভোরে জার্মানির তৈরি কেআরআই নাংগালা-৪০২ সাবমেরিনটি বালি উপকূল থেকে প্রায় ৬০ মাইল (৯৬ কিমি) দূরের পানিতে নি’খোঁজ হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কেআরআই নাংগালা-৪০২ ইন্দোনেশিয়ার পাঁচ’টি সাবমেরিনের মধ্যে একটি।রয়টার্স জানায়, এটি ১৯৭০ এর দশকের শেষের দিকে তৈরি করা হয়েছিল। মাঝখানে মেরামতের জন্য এটিকে

দক্ষিণ কোরিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। দুই বছর পর ২০১২ সালে এটির মেরামত কাজ শেষ হয়।

About admin

Check Also

How To Win Friends And Influence People with stanozolol injection

Ultime Novità Fuelled risk sentimentand tamoxifen citrate solubility in water helped the dollar gain, especially …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *